রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৪৩ পূর্বাহ্ন [gtranslate]
Headline
Headline
রামপালে মরিয়ম বেগম মেমোরিয়াল ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার’র উদ্বোধন ঝিকরগাছা থানার দু’এএসআইসহ এক কনস্টেবলের বিদায় সংবর্ধনা যশোর থেকে যাত্রা শুরু করলো এশিয়ার প্রথম প্রি-ফ্যাব্রিকেটেড মডিউলার ডেটা সেন্টার ‘সাইফার’ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য মনির হোসেনের স্মরণে কালীগঞ্জে আলোচনা ও দোয়া বরগুনা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সাংসদ গোলাম সরোয়ার টুকু’র শুভেচ্ছা বিনিময় ডাসার প্রেসক্লাবের ১৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা। নড়াইলে যুব সংঘ মৎস্য খামারে বিষ প্রয়োগে মাছ নিধনের অভিযোগ পটিয়ায় তিনদিন ব্যাপি বইমেলায় অংশ নিয়েছেন চক্রশালা স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থী পশ্চিম মেদিনীপুরের শালবনী এলাকায়, দুদিনে হাতির হানায় মৃত ২ চৌদ্দগ্রামের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু ইসলামপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রামপালে দুইদিন ব্যাপী বই মেলার উদ্বোধন করলেন এমপি হাবিবুন নাহার রামপালে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় পালিত মহান শহিদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পটিয়ার নাইখাইন হাতে খড়ি শিশু বিদ্যা নিকেতন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় দুই বীর মুক্তিযোদ্ধার বিদায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শায়িত ভাষা শহীদদের স্বরণে গাজীপুর সদর উপজেলা প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন পটিয়ায় এপেক্স ক্লাবের আয়োজনে মাতৃভাষা দিবস উদযাপন ঠাকুর গাঁও পীর গঞ্জে ভাষা শহীদদের স্মৃতির প্রতি বাংলাদেশ জাতীয় সাংবাদিক ফোরাম পুষ্পস্তবক অর্পণ আজ মহান একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সাদা রঙের পৃথিবীর মিউজিক লঞ্চ এবং ডক্টর সোহিনী শাস্ত্রীর বই প্রকাশ
নান্দাইলে সোনালী আঁশে কৃষকের মুখে হাসি
/ ১২০ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২৪ আগস্ট, ২০২১, ৭:৫৫ পূর্বাহ্ন

মোঃ গোলাম মোস্তফা নান্দাইল, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:
ময়মনসিংহের নান্দাইলে পাটের আঁশ ছাড়ানো, পাট ধোয়া ও শুকানোর কাজ পুরুদমে শুরু হয়েছে। পাটের আঁশ ছাড়াতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন চাষিরা। সকাল থেকে সন্ধা পর্যন্ত পাটের আঁশ ছাড়াচ্ছেন তারা। সোনালী আাঁশের সোনালী রঙে ভরে গেছে কৃষকের ঘর। এলাকার কৃষক- কৃষানি রাস্তাঘাট, মাঠ, ক্ষেতের আল, ডোবায়, নদীর তীরে ও বাড়ির আঙিনায় পাটের আঁশ ছাড়ানোর কাজ করছেন।

চলতি মৌসুমে নান্দাইলে বিভিন্ন গ্রাম ও প্রত্যন্ত চরাঞ্চলের জমিতে লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও ব্যাপকভাবে সোনালী আঁশের আবাদ হয়েছে। দেশে সার, বীজ ও অন্যান্য আনুষঙ্গিক খরচ কম ও অনুকূল আবহাওয়া থাকায় সোনালী আঁশের ফলন অধিক হচ্ছে। দেশের হাট-বাজারে পাটের দাম বেশি পাওয়ায় সোনালী আঁশের সুদিন ফিরে আসবে বলে মনে করেন স্থানীয় পাট চাষীরা এবং আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন তারা।

কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় বিভিন্ন গ্রাম ও চরাঞ্চলের সমতল ও অসমতল জমিতে এ বছর পাটের আবাদ লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ১১৯৫ হেক্টর জমিতে। তন্মধ্যে দেশীয়, তোষা, মেশতা ও অন্যান্য জাতের পাট রয়েছে।

মৌসুমের শুরুতে পাট বিক্রি করে ভাল দাম পাচ্ছেন কৃষকেরা। ফলনও হয়েছে ভালো। উপজেলার হাট বাজার গুলোতে প্রতি মন পাট ৩০০০ টাকা থেকে ৩২০০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। পাইকাররা বাড়ি বাড়ি গিয়েও পাট কেনায় ব্যস্ত সময় পার করছে। তাই ভালো ফলন ও আশানুরুপ দাম পেয়ে বিগত বছর গুলোতে লোকসানে পড়া কৃষকদের মুখে সন্তুষ্টির হাসি ফুটে উঠেছে।

উপজেলার বীরকামট খালী,লোহিতপুর, চরকামট খালী,চরকোমরভাঙ্গা,হাটশিরার চরাঞ্চল,কালিবাড়ির চরাঞ্চলসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়,রাস্তার দুই পাশে পাটের আঁশ ছাড়াতে ব্যস্ত কৃষক। তবে এ কাজে পুরুষের পাশাপাশি নারীদেরই পাটের আঁশ ছাড়াতে দেখা যায়।

হাটশিরা চরাঞ্চলে পাটের আঁশ ছাড়ানোয় ব্যস্ত খাদিজা, রাহিমা, রোখেয়া বলেন, আমরা এখানে কাজ করছি পাটখড়ির জন্য। পাটের আঁশ ছাড়ালে পাটখড়ি আমি পাব। দিনে ৫০ থেকে ৬০ আঁটি পাটের আঁশ ছাড়াতে পারি। এতে মালিকের লাভ, আমরারও লাভ।

পাট চাষিদের সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রতি বিঘা জমিতে চাষ, সেচ, রাসায়নিক সার প্রয়োগ, পাট কাটা, শুকানোসহ খরচ হবে ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা। গত বছরের তুলনায় এবার ফলন ও দাম বেশি হওয়ায় অন্য ফসলের তুলনায় লাভ হবে ৫/৬ গুণ। গত বছর বিঘাপ্রতি ৭/৮ মণ পাট পাওয়া গেছে। কিন্তু এবার ফলন ভালো হওয়ায় বিঘাপ্রতি১০/১২ মণ পাট পাওয়া যাবে।

পাট চাষী জুম্মর ব্যাপারী,শহীদ উল্লাহ, কাশেম,রুহুল, কামরুলসহ আরো অনেকেই জানান, ৩ হাজার ২০০ টাকায় বিক্রি করেছি প্রতি মন পাট। এর আগে কখনো এত দামে পাট বিক্রি করিনি। এইবার পাটের বাম্পার ফলন অইছে। পাটের এ দাম ঠিক থাকলে আগামীতে পাটের চাষ আরো বাড়বো।

নান্দাইল উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান বলেন, আমরা কৃষকদের বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ, প্রশিক্ষন ও মাঠ পর্যায়ে দেখাশোনা করায় ফলন ভালো হয়েছে। এছাড়া সরকারি বিভিন্ন প্রণোদনা ও ভর্তুকী কৃষকদের মাঝে পৌঁছে দেওয়ায় তারা আরও বেশী উদ্ভুদ্ব হয়েছে।বর্তমানে বাজারে পাটের চাহিদা ও মূল্য বৃদ্ধির কারণে পাট চাষ দিন দিন বাড়ছে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Our Like Page
February 2024
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
Messenger
Messenger