শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৬:৩৯ পূর্বাহ্ন [gtranslate]
Headline
Headline
কলকাতা আঞ্চলিক মহেশ্বরী সভা ও সম্মাননা প্রদান এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সাংবাদিক “” তপন দাস “” পবিত্র ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আবু গাজী আমির  পীরগঞ্জ উপজেলা বাসিকে পবিত্র ঈদ উল আযহার শুভেচ্ছা জানালেন যুবলীগ নেতা গিয়াস উদ্দীন দেশবাসীকে পবিত্র ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়েছে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউল ইসলাম জিয়া ঝিকরগাছায় গরিবের ঈদের চাউল উধাও : বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ সাংবাদিক নাদিমের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো: আলমগীর জুয়েল  পবিত্র ঈদুল আযহা’র শুভেচ্ছা জানিয়েছেন হাজ্বী মো:ইসমাইল হোসেন চার দিনের মাথায় আবারও ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, কসবা আ্যক্র প্পালিস মলে তৃতীয় ও চতুর্থ তলে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়েছি ঢাকা পত্রিকা ও জাতীয় দৈনিক বিশ্ব মানচিত্র জেলা প্রতিনিধি শ্রী মিশুক চন্দ্র ভুঁইয়া নীলফামারীতে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার রামপালে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে কেন্দ্রীয় বিএনপি’র অর্থ সহায়তা প্রদান মধুপুরে ২ দিন ব্যাপী জৈব পদ্ধতিতে চাষাবাদ বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত পটিয়ার এমপি মোতাহারুল ইসলাম চৌধুরীর সুস্থতা কামনায় পৌরসভা শ্রমিকলীগের দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত শ্যামনগরে স্কুল দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি এবং ছাত্র ছাত্রীদের সমন্বয়ে সেচ্ছাসেবী দল গঠন পরিতোষ কুমার বৈদ্য স্মার্ট ভূমি সপ্তাহ উপলক্ষ্যে ঝিকরগাছায় শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ৭ বার টাঙ্গাইল জেলায় শ্রেষ্ঠ অফিসার নির্বাচিত হলেন মোল্লা আজিজুর রহমান গাজীপুরে দুই কোটি টাকার বনভূমি উদ্ধার করে চারা রোপন ১১ বার শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার নির্বাচিত হলেন ফারহানা আফরোজ জেমি
বিপন্ন দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম টেংরাগিরি বনাঞ্চল ও শুভসন্ধ্যা ঝাউবন
/ ১২৫ Time View
Update : শুক্রবার, ১৬ জুলাই, ২০২১, ১১:২২ পূর্বাহ্ন

সাইফুল্লাহ নাসির,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধিঃ
বরগুনার তালতলী উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের নলবুনিয়ায় তিন নদীর মোহনায় বঙ্গোপসাগরের কোল ঘেষে অবস্থিত এই শুভসন্ধ্যা সমুদ্র সৈকত এবং কিছু দুরেই দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চল টেংরাগিরি।ঘূর্ণিঝড় ইয়াশের আঘাতে রাস্তাসহ ঝাউবাগান বিপন্ন হয়ে পড়েছে।

সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে,শুভসন্ধা সমুদ্র সৈকত ও টেংরাগিরি ইকো পার্কের ভিতরে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।শুভ সন্ধার সমুদ্র সৈকতের ঝাউ বাগানটি পর্যটকদের কাছে বেশ আর্কষণীয় জায়গা ছিল।সেই ঝাউবাগান এর সৌন্দর্য্য ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে মাটির গর্ভে বিলীন হয়েছে।ঝাউগাছের পাশাপাশি সৈকতে নামার মূল পাকা সড়ক ও বেশ কয়েকটি বিদ্যুৎতের খুটি ভেঙে সৈকতে পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

বন বিভাগের সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার শুভসন্ধ্যা সমুদ্র সৈকতে ঝাউ গাছ লাগানো শুরু থেকে যে কয়টি ঘূর্ণিঝড় আসছে তাতে প্রায় ২৫ হাজার ঝাউ গাছের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে লণ্ডভণ্ড হয়ে পড়ে আছে ৫০ ফুট প্রস্থ ও ৩ কিলো মিটার দৈর্ঘ্য এঝাউবনটি।টেংরাগিরির ভিতরে ভেতর ৪০ মিটার দৈর্ঘ্যের অ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মাণ প্রকল্পও হাতে নিয়েছে এলজিইডি। ৭৭ মিটার দৈর্ঘ্যের সেতুটির নির্মাণব্যয় ধরা হয় ৭ কোটি টাকারও বেশি।পরিকল্পনায় গলদ’ থাকায় এ উদ্যোগ বনাঞ্চল ও জীববৈচিত্র্য রক্ষার জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চল টেংরাগিরি ও শুভসন্ধ্যার ঝাউবনটি ঘূর্ণিঝড় সিডর, আয়লা, নারর্গিস, আম্ফানসহ বড় বড় প্রাকৃতিক দুর্যোগকে মোকাবেলা করে উপকূল বাসীকে রক্ষা করেছে। এই বন উপকূলীয় এলাকার মানুষের জীবন ও সম্পদের রক্ষাকারী কবজ হিসেবেও কাজ করেছে। আর ইয়াসের প্রভাবে সেই রক্ষা কবজই এলোমেলো হয়ে গেছে। এই বন না থাকলে উপকূলকে বাচাঁনো সম্ভব হতো না।বনাঞ্চল না থাকলে আমাদের আরো ক্ষয়ক্ষতি হতো।

নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. দুলাল ফরাজী বলেন,এই সমুদ্র সৈকতের বিশাল আকর্ষণ হলো ঝাউবাগানটি।প্রতিটি প্রাকৃতিক দুর্যোগে টেংরাগিরি বনাঞ্চল ও শুভসন্ধ্যা ঝাউবন আমাদের এ উপককূলীয় এলাকার মানুষদের জীবন ও সম্পদ বন্যা থেকে রেহাই করে।

তালতলী এলজিইডির প্রকৌশলী আহম্মেদ আলী বলেন,জেলা প্রশাসনের নির্দেশনায় আমরা এখানে সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করি।সেতুর ৬০ভাগ কাজ শেষ হয়েছে।

তালতলী বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ঘূর্ণিঝড় ইয়াস ও স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে সাগরে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় টেংরাগিরি বনাঞ্চল ও শুভসন্ধ্যা ঝাউবনের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। পানির তোরে শুভসন্ধ্যা সমুদ্র সৈকতের প্রায় দেড় কিলোমিটার পার ভেঙে সাগরে বিলীন হয়ে গেছে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Our Like Page
June 2024
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031